বিশ্বকাপের মেডেল খুঁজে হয়রান আর্চার

আমার নিউজ ডেক্স:

লকডাউনে সময় কাটাতে একেক ক্রিকেটার একেক কাজে ব্যস্ত। কেউ রান্না করছেন। অনেকে গলা ঝেড়ে গান গাইছেন। কেউ আবার নেচে নিজের প্রতিভা জাহির করছেন।

তো জোফরা আর্চার কী করছেন? তার সমর্থকদের মনে এ প্রশ্ন জাগতেই পারে? জেনে রাখুন– তিনি একটা মূল্যবান জিনিস খুঁজতে খুঁজতে হয়রান!

অধিকন্তু হাজারও চেষ্টা করেও সেটি খুঁজে না পাওয়ায় পাগলের মতো আচরণ করছেন ক্যারিবীয় বংশোদ্ভূত ইংলিশ পেসার।

অবশ্য জিনিসটা অতিমূল্যবান। সেটা না পেলে যে কোনো ক্রিকেটারেরই পাগলপ্রায় হয়ে ওঠার কথা।

তাই মন বিষাদে ভরে গেছে আর্চারের। বিশ্বকাপে সাধের মেডেল হারিয়ে ফেলেছেন তিনি। ওয়ানডে বিশ্বকাপ-২০১৯ খেলে এটি পেয়েছিলেন ২৫ বছর বয়সী গতিতারকা।

বিশ্বকাপ খেলা যে কোনো ক্রিকেটারের স্বপ্ন। বিশ্বমঞ্চ থেকে পাওয়া মেডেল নিঃসন্দেহে অমূল্য সম্পদ। সেটিই হারিয়ে ফেলেছেন আর্চার।

তিনি বলছেন, বাড়িতেই সেটি কোথাও রেখেছেন। এখন মনে করতে পারছেন না। তাই পাগলের মতো আচরণ করছেন।

আর্চার বলেন, বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট চলাকালীন একজন আমাকে একটা ছবি উপহার দিয়েছিলেন। সেটা ঘরের দেয়ালে টাঙাই। এটির ওপরই মেডেলটা ঝুলিয়ে রেখেছিলাম।

সম্প্রতি অন্য বাড়িতে উঠেছেন আর্চার। এ সময়ই তার মেডেলটি খোয়া গেছে বলে মনে করছেন তিনি।

বিশ্বকাপ ফাইনালে সুপার ওভারে বল করেন এ গতিদানব। নিউজিল্যান্ডকে লোমহর্ষক ম্যাচে হারিয়ে বিশ্বসেরা হন তিনি।

শিরোপা জেতার পর সেই মেডেল পান ডানহাতি ফাস্ট বোলার।

স্বভাবতই স্মরণীয় স্মারক হারিয়ে মন খারাপ আর্চারের। তিনি বলেন, সত্যি বলছি– আমার পাগলের মতো অবস্থা।

কোথায় যে রেখেছি মেডেলটা, পাচ্ছি না। এখন কী করব, সেটিও ভেবে কূল পাই না।

তথ্যসূত্র: দ্য গার্ডিয়ান

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here