জীবন বাঁচাতে সুইটের চিকিৎসায় “ঝিনেদার আঞ্চলিক ভাষা গ্রুপ”

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:

দুই কিডনি হারিয়ে জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে থাকা ঝিনাইদহের যুবক মোর্শেদ বিন মাসুদ সুইটের (৩৫) চিকিৎসায় এগিয়ে এসেছে “ঝিনেদার আঞ্চলিক ভাষা গ্রুপ”।

গ্রুপের কর্মকর্তারা রোববার বিকালে পাগলাকানাই সড়কের ব্যাপারীপাড়াস্থ তার বাসায় উপস্থিত হয়ে গ্রুপের পক্ষ থেকে ত্রিশ হাজার টাকা প্রদান করা হয়। এই অর্থ গ্রুপের দেশী বিদেশী সদস্যরা সুইটের চিকিৎসা সহায়তা হিসেবে প্রদান করেন।

অর্থ বিতরণ অনুষ্ঠানে ঝিনেদার আঞ্চলিক ভাষা গ্রুপের সভাপতি সাংবাদিক আসিফ কাজল, সাইফুল ইসলাম লিকু, মাসুদ রানা, সাব্বির আহম্মেদ জুয়েল, সাইদুল ইসলাম টিটো, মনিরা আক্তার, ফিরোজা জামান আলো, মোহাম্মদ আলী, শাহানাজ পারভিন, তারেক মাহমুদ জয়, আরিফা ইসলাম লিম্পা, মনিরুজ্জামান ও মাহমুদ সাগর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এদিকে তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে আমেরিকা থেকে সরাসরি এই অর্থ বিতরণ অনুষ্ঠানে যুক্ত হন গ্রুপ ক্রিয়েটর ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম মিঠু।

লাইভ অনুষ্ঠানে তিনি সুইটের জীবন বাঁচাতে সাধ্য মতো সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান জানান। মোর্শেদ বিন মাসুদ ওরফে সুইট জানান, গত সাত বছর ধরে তিনি কিডনি রোগে ভুগছেন।

এ পর্যন্ত চিকিৎসায় তার সহায় সম্বল সব কিছু চলে গেছে। খরচ হয়েছে প্রায় ৩২ লাখ টাকা। তাও সুস্থ হতে পারেনি। এখন তিনি নিঃস্ব। দুই কিডনি বিকল হয়ে গেছে। চিকিৎসকরা দুই মাসের মধ্যে কিডনি প্রতিস্থাপনের পরামর্শ দিয়েছেন।

ঝিনেদার আঞ্চলিক ভাষা গ্রুপ ছাড়াও তার চিকিৎসায় ফেসবুক ভিত্তিক সংগঠন হিব্বি গ্রুপ, বোকা সংঘ, মানবতার ফেরিওয়ালা, হিলফুল ফুজুল, মাদার তেরেসা ব্লাড ব্যাংক, করোনা সেচ্ছাসেবক ঝিনাইদহ, নবগঙ্গা রক্ষা পরিষদ, ঝিনুকদহ ভাষা পরিষদ, মর্ণিংবেল একাডেমি, ঘাসফুল সেচ্ছাসেবী সংগঠন, সততা ফাউন্ডেশন, ঝিনাইদহের ঐতিহ্য,

কাঞ্চননগর ৯৮ ব্যাচ ও র‌্যাচ ৯৯সহ দেশে এবং দেশের বাইরে থেকে অনেকে ব্যক্তিগত ভাবেও সুইটের চিকিৎসা সহায়তায় এগিয়ে আসছেন। সুইটের পাশে দাড়োনা সাব্বির আহম্মেদ জুয়েল ও তারেক মাহমুদ জয় জানান, তার চিকিৎসায় প্রয়োজন ৮/৯ লাখ টাকা। গত এক সপ্তায় পাওয়া গেছে দুই লাখের উপরে।

স্ত্রী তহমিনা খাতুন জানান, সমাজের দানশীল ও বিত্তবানরা এভাবে সাড়া দিলে দুই সন্তানের জনক সুইট আবার পৃথিবীর আলো দেখতে পারবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here