যেমন প্রয়োজন তৃণমূল জনপ্রতি‌নি‌ধি

নিজস্ব প্রতি‌বেদক

আমা‌দের দে‌শের তৃণমূ‌লের জনপ্রতি‌নি‌ধিরা কতটা গুরুত্মপূর্ণ ভূ‌মিকা রাখ‌তে পা‌রে তা যেন এই বৈ‌শ্বিক মহামারী কো‌ভিড-১৯ তথা ক‌রোনা ভাইরাস দে‌খি‌য়ে দিল। মানুষ যখন মান‌সিক, অর্থ‌নৈ‌তিক, সহ স্বাস্থ‌্য ব‌্যাবস্থার চরম বিপর্যয়ের ম‌ধ্যে দিন অ‌তিবা‌হিত কর‌ছে ঠিক সেসময় আশার বাণী শোনা‌নোর মত যেন কেউই নেই। এই সকল মানু‌ষের প্রথম ও প্রধান ভরসা প্রদানকারী হিসা‌বে তৃণমূ‌লের জনপ্রতি‌নি‌ধিরাই হ‌য়ে উঠ‌তো একমাত্র ত্রাণ কর্তা । যি‌নি আর কিছু না হোক সর্বস্ত‌রের সব মানুষ‌কে অভয় দি‌তে পা‌রেন, ভ‌বিষ‌্যত ও বর্তমা‌নের প‌রি‌স্থি‌তি মোকা‌বেলার সাহসের যোগান দি‌বেন। তেম‌নি এই প্রতি‌বেদক আজ তু‌লে ধ‌রে‌ছেন একটা ইউ‌পি সদ‌স‌্যর কথা , যার দ্বারা আগামী দিনগু‌লি মানুষ তার মাধ‌্যমে আশার বাণী শুন‌তে পা‌রেন।

সেবার মাধ্যমে জনসমর্থন অর্জন করা বর্তমানে কঠিন থেকে কঠিনতর একটি বিষয়। কিন্তু সেই কঠিন কাজটাকে সহজ করে জনগণের ভালবাসা পুষ্ট যে ব্যক্তি দিনরাত জনকল্যাণে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে, সাধারণ মানুষের সমস্যাবলির সমাধানে যার পদচারণা সবার আগে পড়ে, গরীব দুঃখীর পাশে দাঁড়ানো সেই ব্যক্তিটি “”গোলাম কিবরিয়া বিপ্লব”” স্যার। মাইকেল মধুসূদন কলেজ ( য‌শোর ) থেকে বি.এ পাশ করার পর শিক্ষকতা করছেন কুশনা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে।

একদিকে তিনি ছড়াচ্ছেন শিক্ষার আলো, অপরদিকে সমাজকে আলোকিত করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন নিরলসভাবে। শিক্ষকতার পাশাপাশি সংস্কৃতিমনা এই ব্যক্তি দায়িত্বে আছেন বিভিন্ন পদে। ছাত্র জীবনেই তিনি ছিলেন এম . এম কলেজ ছাত্রলীগের একজন একনিষ্ঠ সংগ্রামী কর্মী। পরবর্তীতে ২০০৬ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করছেন কোটচাঁদপুর উপজেলা যুবলীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক হিসাবে। বর্তমানে তিনি উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য হিসাবে দায়িত্বরত।

উল্লেখ করার মত একটা বিষয় হচ্ছে ২০০৯ সালের ইউ পি নির্বাচনে ৩ং কুশনা ইউনিয়ন পরিষদের ইউ পি সদস্য হিসাবে সর্বোচ্চ ভোট পাওয়া ব্যক্তিটি তিনিই। সেই ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছেন পরবর্তী নির্বাচনেও। সেখানেও জয়ী হয়েছেন বিপুল ভোটে। এছাড়াও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসাবে কাজ করেছেন ২০১২ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে ২০১৩ সালের জুলাই পর্যন্ত।

একাধারে শিক্ষক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, সমাজকর্মী এবং বিভিন্ন সৎগুণাবলীর অধিকারী গোলাম কিবরিয়া বিপ্লব জনগণের জন্য নিরবিচ্ছিন্নভাবে কাজ করে যাচ্ছেন ৩ং কুশনা ইউনিয়নের ওয়ার্ড সদস্য হিসাবে।


তার সেবার হাতকে বৃহত্তর জনসমষ্টি পর্যন্ত প্রসারিত করতে কুশনা ইউনিয়নবাসী তাকে আগামী ইউ পি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দেখতে চান ব‌লে এ প্রতি‌বেদক‌কে জানান স্থানীয় সর্বস্ত‌রের মানুষ। সক‌লের সহযোগিতা ও সমর্থনের মাধ্যমে বদলে যেতে পারে কুশনা ইউনিয়নের ভবিষ্যত। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার “”গ্রাম হবে শহর”” প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে কুশনা ইউনিয়নকে একটি রোল মডেলে পরিনত করতে জনাব গোলাম কিবরিয়া বিপ্লব অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে বলে জনগণ প্রচণ্ড আশাবাদী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here