প্রশাসনের অনুমতির অপেক্ষায় ঝিনাইদহের বিনোদকেন্দ্র গুলো

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:

সরকারি দেওয়া শর্ত মেনে পার্ক খুলতে প্রস্তুত ঝিনাইদহের বিনোদনকেন্দ্রগুলোর মালিকরা। ইতিমধ্যে পার্কে হাত ধোয়া, স্যানিটাইজার স্প্রে করা ও মাস্ক পড়া নিশ্চিত করতে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন তারা। শুধু অপেক্ষায় রয়েছেন জেলা প্রশাসনের অনুমতির।

জানা যায়, মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে গত ৫ মাস ধরে বন্ধ রয়েছে ঝিনাইদহের বিনোদন কেন্দ্রগুলো। এই সময়ে লোকসান হয়েছে প্রায় কোটি টাকা। আর মানবেতর জীবন যাপন করছেন পার্কের স্থায়ী ও মৌসুমি ৩০০ কর্মী।

শহরের জোহান ড্রিম ভ্যালি পার্কের সত্ত্বাধিকারী মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, করোনার কারণে ৫ মাস পার্ক বন্ধ রাখা হয়েছে।

দেশের অন্যান্য স্থানে পার্ক খুলে দিলেও ঝিনাইদহে এখনও বন্ধ রাখা হয়েছে। এতে পার্কের কর্মচারীরা চরম কষ্টে দিন যাপন করছে।

তিনি বলেন, পার্ক খুলে দেওয়ার ব্যাপারে সরকার যা নির্দেশনা দিয়েছে। তার সবগুলো মেনেই আমরা পার্ক চালু করবো।

ইতিমধ্যে আমরা তার সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। পার্কে প্রবেশের সময় দর্শনার্থীরা যেন হাত ধুয়ে ভিতরে ঢুকতে পারে এ জন্য সাবান ও পানির ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও স্যানিটাইজার স্প্রে করা হবে।

তিনি আরও বলেন, আগামী ৪ মাস পার্কের যত দর্শনার্থী আসবে প্রত্যেককে টিকিটের সাথে একটি মাস্ক বিনামুল্যে দেওয়া হবে।

পার্ক দ্রুত খুলে দেওয়ার জন্য ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথকে অনুরোধ জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ বলেন, পার্কের মালিকরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে পার্ক চালুর ব্যবস্থা করলে দ্রুতই পার্ক চালুর অনুমতি দেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here