আখাউড়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় যুবক নিহত


বাদল আহাম্মদ খান , আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি


তুচ্ছ ঘটনায় প্রতিপক্ষের হামলায় প্রতিবন্ধি এক যুবক খুন হয়েছেন। এ ঘটনায় নারীসহ আহত হয়েছে আরও ১০ জন। নিহত যুবকের নাম সফিকুল ইসলাম (২২)।
সে আখাউড়া উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের বাসিন্দা মৃত
আব্দুল কাদির মিয়ার ছেলে। হামলায় আহতরা হলেন রোকেয়া (৫০), চম্পা (৩৫) মাহমুদ আলী (৭০), আহম্মদ আলী (৬৫), সিরাজ (৫৫) জাহাঙ্গীর (৩৫), আশিক (২৩), শরীফ (১৬), বাদশা (২০) ও মুছা (৩০)।
বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার বাসুদেব ইউনিয়নের বৈষ্টবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
এঘটনার খবর পেয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।


পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।
নিহত সফিকুল ইসলামের মা রোকিয়া বেগম, প্রতোক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বৈষ্টব পুর গ্রামের রুবেল (২২) প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে ঘর থেকে বের হয়। এ সুযোগে গ্রামের বখাটে যুবক ইমাম হোসেন ঘরে প্রবেশ করে রুবেলের স্ত্রী নববধূ সুমাইয়া আক্তার কে জোর পূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে। গৃহবধূর চিৎকারের তার স্বামীসহ বাড়ির লোকজন ইমামকে আটক করে। পরে ইমাম হোসেনের লোকজন খবর পেয়ে দা, লাঠিসহ দেশীয় অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে রুবেলের বাড়িতে অতর্কীত ভাবে গ্রামের কাউছার, শাহীন বেগ, জাকির, ভূঁইয়া শাহীন, শাহজাহান, আনোয়ার, মনির চৌধুরী, ছাইদুল ও ইমাম হোসেন হামলা চালায়। হামলায় কুপিয়ে সফিকুল ইসলামকে ঘটনাস্থলেই হত্যা করে। ওই হমলা সিরাজ, মাহমুদ ও আশিকের অবস্থা গুরুতর বলে জানাগেছ।
ব্রাহ্মনবাড়িয়া সদর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) মো. সেলিম যুগান্তরকে বলেন,
রাত থেকেই ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here